Are you want to HIRE me Contact Us Hire Me!

এডসেন্স এবং ফ্রিল্যান্সারদের জন্য সেরা ১০টি ব্যাংক 2023

আজকে আমরা এই আলোচনা করব বাংলাদেশের সেরা ১০ টি ব্যাংক অ্যাকাউন্ট নিয়ে যার মাধ্যমে আপনি সহজেই ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেস থেকে খুব সহজে আপনার উপার্জিত অ

 

এডসেন্স এবং ফ্রিল্যান্সারদের জন্য সেরা ১০টি ব্যাংক ,এডসেন্স , ফ্রিল্যান্সার, সেরা  ব্যাংক

ফ্রিল্যান্সারদের অনেক কষ্ট করে, অনেক সময় ধৈর্য ধরে টাকা উপার্জন করতে হয়৷ কোন কোন ক্ষেত্রে প্রথমের জন্য অনেক সময় বসে থাকতে হয় কিন্তু যখন আপনি প্রথম ইনকাম করে ফেলেন তখন আপনার ইনকাম উত্তোলনের জন্য কয়েকটি পথ থাকে৷ তার মধ্যে সবথেকে জনপ্রিয় এবং নিরাপদ উপায় হল ব্যাংক ট্রান্সফার অর্থাৎ ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেসগুলো থেকে অথবা এডসেন্স থেকে আপনার ইনকাম করা টাকা খুব সহজেই ব্যাংক একাউন্টের মাধ্যমে আপনার হাতের মধ্যে নিয়ে আসতে পারবেন৷ কিন্তু আপনি যদি নতুন হন তাহলে আপনাকে অবশ্যই জানতে হবে কোন ব্যাংক ভালো ফ্রিল্যান্সার এবং এডসেন্সের জন্য৷ আজকে আমরা এই আলোচনা করব বাংলাদেশের সেরা ১০ টি ব্যাংক অ্যাকাউন্ট নিয়ে যার মাধ্যমে আপনি সহজেই ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেস থেকে খুব সহজে আপনার উপার্জিত অর্থ উত্তোলন করতে পারবেন, কোনো প্রকার সমস্যা ছাড়াই৷

একজন সফল ফ্রিল্যান্সার হতে গেলে অনেক কষ্ট করতে হয় কিন্তু যখন টাকা উত্তোলনের দিকে যান তখন আপনাকে বাংলাদেশের নানাভাবে সমস্যার সম্মুখীন হতে হয়৷ যার মধ্যে অন্যতম কয়েকটি সমস্যা হলো উচ্চ উইথড্র ফি, অল্প সংখ্যক সুবিধার, আস্তে আস্তে কাজ করা আর তার বিলম্ব না করা এবং অতিরিক্ত ফি ইত্যাদি বিষয়গুলো সব সময় লেগেই থাকে ৷ এজন্য আজ আমরা এমন দশটি ব্যাংক নিয়ে আলোচনা করব যেগুলো আপনি ফাইভার, আপওয়ার্ক কিংবা ফ্রিল্যান্সার ডটকম সাইট থেকে শুরু করে সব মার্কেটপ্লেসগুলোতে এই ব্যাংক একাউন্ট ইউজ করতে পারবেন৷ এবং এডসেন্সের মাধ্যমে উপার্জিত অর্থ এই ব্যাংক একাউন্ট গুলোতে অনায়াসে আনতে পারবেন, কোনরকম সমস্যা ছাড়াই৷

{tocify} $title={Table of Contents} 

এডসেন্স এবং ফ্রিল্যান্সারদের জন্য সেরা ব্যাংক প্রয়োজনীয়তা

বাংলাদেশ ফ্রিল্যান্সিংয়ের সব থেকে জনপ্রিয় দেশগুলোর অন্যতম৷ ফ্রিল্যান্সিং এ বাংলাদেশের ইনকাম দিনে দিনে বৃদ্ধি পাচ্ছে৷ বাংলাদেশের বেশিরভাগই যুবকেরা এখন ফ্রিল্যান্সিংয়ের দিকে ধাবিত হচ্ছে৷ এজন্য ফ্রিল্যান্সিং সেক্টরের অন্যতম একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হচ্ছে ইনকাম করা টাকা উত্তোলন করা৷

বাংলাদেশ পেপালের মতো বড় বড় কয়েকটি পেমেন্ট অপশন নেই যার কারণে ফ্রিল্যান্সারদের একটু বেশি পরিমাণে সমস্যা সম্মুখীন হতে হয়। পেওনিয়ার বাংলাদেশ ব্যবহারের সুযোগ থাকলেও সরাসরি টাকার মাধ্যমে লেনদেন করা যায় না তাছাড়া অ্যাকাউন্ট খুলতে গেলে আপনাকে অবশ্যই একটি ব্যাংক অ্যাকাউন্ট প্রয়োজন হবে৷ যার মাধ্যমে এখন টাকা উত্তোলন করতে পারবেন। এজন্য আপনাকে অবশ্যই বাংলাদেশের বেস্ট ব্যাংকগুলোকে জানতে হবে ব্যাংকগুলো সম্পর্কে আপনার পরিপূর্ণ ধারণা থাকলে আপনি পরবর্তীতে নিজে নিজেই সিদ্ধান্ত গ্রহণ করতে পারবেন, কোন ব্যাংকটি আপনার জন্য ভালো হবে৷


Read More

10 Best Banks in Bangladesh for Freelancers 

High CPC Countries List | Highest paying Adsense Country

Best Domain And Web Hosting in Bangladesh : A Complete Guidelines

How To Start Blogging in Bangladesh 


সেরা ১০ টি ব্যাংক অ্যাকাউন্টের লিস্ট এডসেন্স এবং ফ্রিল্যান্সারদের জন্য

1. ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশ লিমিটেড

বাংলাদেশের সব থেকে জনপ্রিয়, প্রচলিত এবং রেমিটেন্স ফ্রিল্যান্সিং এর ইনকাম কিংবা এডসেন্সের ইনকাম সব দিক থেকেই ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশ লিমিটেড সেরা৷ বেশিরভাগ ফ্রিল্যান্সার আইবিবিএল এর আওতাধীন একাউন্ট করে থাকেন৷ সবথেকে বেশি সুবিধা এবং তাড়াতাড়ি সকল কাজ সম্পূর্ণ করার জন্য তাদের রেপুটেশন সবসময় বেশি থাকে৷ ফ্রিল্যান্সিং এর ইনকাম এর উত্তোলন করার জন্য ঝামেলা মুক্ত সবথেকে ভালো এবং খুব সহজেই দেশের যে কোন জায়গা থেকে উত্তোলন করা যায়৷ পুরো বাংলাদেশে তাদের অসংখ্য শাখা রয়েছে এবং এটিএম বুথ ও আছে৷ যার মাধ্যমে আপনি যেকোন জায়গা থেকে আপনার উপার্জিত অর্থ উত্তোলন করতে পারবেন৷ সবথেকে কম সময়ের মধ্যেই এবং সুবিধাজনক উইড্র হারের জন্য ইসলামী ব্যাংক সবথেকে সেরা৷ তাদের অ্যাকাউন্ট তৈরি করার সময় কোন প্রকার ঝামেলা হয় না অনলাইনে কিংবা সরাসরি আপনার ব্যাংক একাউন্ট তৈরি করতে পারবেন৷ আইবিবিএল সরকার অনুমোদিত ২.৫ শতাংশ প্রণোদনা দিয়ে থাকে৷ তাদের সেলফিন  মোবাইল ব্যাংকিং অ্যাপস ব্যবহার করে যেকোনো ধরনের পেমেন্ট থেকে শুরু করে যাবতীয় লেনদেন করতে পারবেন৷ খুব সহজে তা ছাড়া আপনার ব্যাংক অ্যাকাউন্ট সরাসরি যুক্ত করেন কাজ করতে পারবেন৷ ব্যাংকের যাবতীয় ডিটেইলস আপনার সেলফিন অ্যাপে দেওয়া থাকবে৷ ইসলামী ব্যাংক ডুয়েল কারেন্সি ক্রেডিট কার্ড প্রদান করে থাকে তাদের ক্রেডিট কার্ডের নাম হল ভিসা ইন্টারন্যাশনাল ডুয়েল কারেন্সি প্ল্যাটিনাম ডেবিট কার্ড৷ আপনি এই কার্ড বেশি যে কোন জায়গায় ব্যবহার করতে পারবেন৷ ডলার কিংবা টাকা যে কোন কারেন্সিতে তাছাড়া তাদের দেশে ব্যবহারের জন্য খিদমাহ কার্ড প্রদান করে থাকে। আপনি যে কোন জায়গায় তাদের আই ব্যাংকিং অ্যাপ ব্যবহার করে আপনার টাকার লেনদেন করতে পারবেন৷


সুবিধা সমূহ

  • সহজ অ্যাকাউন্ট খোলা এবং পরিচালনা
  • কম ফি
  • 2.5% প্রণোদনা
  • দ্রুত ঝামেলা-মুক্ত উইথড্র
  • ডুয়াল কারেন্সি কার্ড
  • ওয়ার ট্রান্সফার
  • মোবাইল ফিনান্সিয়াল সার্ভিস
  • ডলার পেমেন্ট
  • অনলাইন ব্যাংকিং

Apply Here


2. ব্যাংক এশিয়া

ব্যাংক এশিয়া হলো ফ্রিল্যান্সারদের জন্য সবথেকে ভালো এবং সুবিধা জনক এবং নিরাপদ ব্যাংক৷ যার মাধ্যমে আপনি সরাসরি এবং কম সময়ের মধ্যেই আপনার উপার্জিত অর্থ সরাসরি ব্যাংকে নিয়ে আসতে পারবেন৷ সময় মত লেনদেন করার জন্য ব্যাংক এশিয়া তাদের একটি সুবিধা নিয়ে আসে অর্থাৎ নিউইয়র্ক পেমেন্ট যার মাধ্যমে আপনি আমেরিকার মতো দেশগুলো থেকে সহজে টাকা গুলো আপনার ব্যাংক একাউন্টে নিয়ে আসতে পারবেন৷ আপনি সরাসরি তাদের ওয়েবসাইটে গিয়ে আপনার একটি ব্যাংক একাউন্ট খুব সহজেই তৈরি করতে পারবেন। নিচে আমি কিভাবে ব্যাংক একাউন্ট খুলতে লাগে আর কি কি লাগে তা নিয়ে আলোচনা করব নিশ্চয়ই পড়ে যাবেন ৷ আপনি ব্যাংক এশিয়া একাউন্ট ব্যবহার করে পেওনিয়ার, পেজা কিংবা ট্রান্সফার সব জায়গাতেই এই অ্যাকাউন্ট ব্যবহার করতে পারবেন৷


সুবিধা সমূহ

  • সহজ অ্যাকাউন্ট খোলা এবং পরিচালনা
  • কম ফি
  • 2.5% প্রণোদনা
  • দ্রুত ঝামেলা-মুক্ত উইথড্র
  • ডুয়াল কারেন্সি কার্ড, স্বাধীন কার্ড
  • ওয়ার ট্রান্সফার
  • মোবাইল ফিনান্সিয়াল সার্ভিস
  • ডলার পেমেন্ট
  • অনলাইন ব্যাংকিং

Apply Here


3. ব্র্যাক ব্যাংক

ব্র্যাক ব্যাংক বাংলাদেশের অন্যতম একটি স্বনামধন্য এবং ভালো মানের সার্ভিস প্রদানকারী ব্যাংক৷ ফ্রিল্যান্সাররা খুব সহজেই তাদের ব্যাংক অ্যাকাউন্ট ব্র্যাক ব্যাংকে অনলাইন এর মাধ্যমে কিংবা সরাসরি করতে পারবেন৷ তাদের নানা ধরনের সুবিধা রয়েছেন তার মধ্যে হল খুব কম সময়ের মধ্যে আপনি টাকা উত্তোলন করতে পারবেন, ঝামেলা ছাড়াই৷ তাছাড়া তারা সরকার অনুমোদিত ২.৫ শতাংশ দেয়৷ তাদের একটি ডুয়েল কারেন্সি কার্ড রয়েছে যার মাধ্যমে আপনি ইন্টারন্যাশনাল পেমেন্ট করতে পারবেন এবং বাংলাদেশের যে কোন জায়গায় ব্যবহার করতে পারবেন৷ তাদের সব থেকে ভালো যে জিনিসটি হল তাদের নিজস্ব মোবাইল ব্যাংকিং অ্যাপ বিকাশের মাধ্যমে আপনি যেকোনো জায়গায় যেকোনো ধরনের ফি, পেমেন্ট এবং ট্রান্সফার করতে পারবেন, খুব সহজে৷ তাছাড়া আপনি ডলার লেনদেন খুব সাহায্য করতে পারবেন৷ তাদের মোবাইল ব্যাংকিং সুবিধার ফলে আপনি রেমিটেন্সের টাকা সরাসরি টাকা আকারে যেকোনো জায়গা থেকে উত্তোলন করতে পারবেন৷ ব্র্যাক ব্যাংক অনলাইন এর মাধ্যমে যে কোন প্রকার সমস্যা সমাধান করতে সক্ষম যার ফলে অনলাইনে আপনার সমস্যা সমাধান করতে পারবেন৷


সুবিধা সমূহ

  • সহজ অ্যাকাউন্ট খোলা এবং পরিচালনা
  • 2.5% প্রণোদনা
  • দ্রুত ঝামেলা-মুক্ত উইথড্র
  • ডুয়াল কারেন্সি কার্ড
  • মোবাইল ফিনান্সিয়াল সার্ভিস
  • অনলাইন ব্যাংকিং

Apply Here


4. ডাচ বাংলা ব্যাংক বাংলাদেশ লিমিটেড

ডাচ-বাংলা ব্যাংক লিমিটেড বাংলাদেশের সবথেকে জনপ্রিয় এবং রেমিটেন্স আদায়ের জন্য প্রশংসিত৷ আপনারা ডিবিবিএল ব্যবহার করে খুব সহজে ফ্রিল্যান্সিংয়ে এবং এডসেন্সের টাকা ঝামেলা মুক্ত ভাবে উত্তোলন করতে পারবেন৷ তাদের অসংখ্য এটিএম বুথ থাকায় আপনি যেকোনো জায়গা থেকে আপনার উপার্জিত অর্থ উত্তোলন করতে পারবেন৷ বলা যেতে পারে ফ্রিল্যান্সারদের জন্য সবথেকে ভালো ব্যাংক গুলোর মধ্যে ডাচ বাংলা ব্যাংক অন্যতম৷ কিন্তু তাদের ব্যাংক অ্যাকাউন্ট খুলতে গেলে কিছু অতিরিক্ত তথ্যের প্রয়োজন হয়। যা একজন ব্যাংক অ্যাকাউন্টারের জন্য খারাপ লেগে থাকে৷ এখানে আত্মীয়দের ব্যাংক একাউন্টের ডিটেলস প্রয়োজন হয় যা সমস্যার সম্মুখীন করে তা ছাড়া অন্য কোন সমস্যা হয়না একাউন্ট খুলতে৷ ডিবিবিএল সরকারি ঘোষণা অনুযায়ী রেমিটেন্সের উপর ২.৫ শতাংশ প্রণোদনা দিয়ে যাচ্ছে৷ আপনি তাদের নেক্সাস পে অ্যাপ ব্যবহার করে আপনার অনলাইনের যাবতীয় লেনদেন পেমেন্ট এবং অন্যান্য কাজগুলো করতে পারবেন৷ তাছাড়া তারা একটি ডুয়েল কারেন্সি মাস্টার কার্ড ফ্রিল্যান্সারদের জন্য দিয়ে থাকে যা আপনি পুরো বিশ্বব্যাপী ব্যবহার করতে পারবেন৷ কিন্তু সমস্যা হল আপনি বাংলাদেশের মধ্যে  ব্যবহার করতে পারবেন না৷ তাছাড়া তাদের মোবাইল ব্যাংকিং অ্যাপস রকেট এর মাধ্যমে ব্যাংক একাউন্ট থেকে সরাসরি টাকা নিয়ে আসতে পারবেন এবং আপনার পছন্দমত ব্যবহার করতে পারবেন৷


সুবিধা সমূহ

  • কম ফি
  • 2.5% প্রণোদনা
  • দ্রুত ঝামেলা-মুক্ত উইথড্র
  • ডুয়াল কারেন্সি কার্ড
  • ওয়ার ট্রান্সফার
  • মোবাইল ফিনান্সিয়াল সার্ভিস
  • ডলার পেমেন্ট
  • অনলাইন ব্যাংকিং

Apply Here


5. মিউচুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংক এম টি বি

মিউচুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংক বাংলাদেশের অন্যতম একটি জনপ্রিয় ব্যাংক ফ্রিল্যান্সারদের জন্য৷ অনায়াসে তাদের একটি অ্যাকাউন্ট খুলতে পারবেন৷ আপনি চাইলে সরাসরি কিংবা অনলাইনে যে কোন ভাবে একাউন্ট তৈরি করতে পারবেন৷ তারা অনুমোদিত ২.৫% প্রণোদনা দিয়ে যাচ্ছেন৷ তাদের সব থেকে ভালো দিক হচ্ছে তাদের কয়েকটি কার্ড রয়েছে তার মধ্যে সবথেকে ভালো হচ্ছে ভিসা ইন্টারন্যাশনাল প্রিপেইড কার্ড যার মাধ্যমে আপনি বিশ্বব্যাপী লেনদেন করতে পারবেন৷ তাদের নিজস্ব কোন মোবাইল ব্যাংকিং অ্যাপস নেই কিন্তু তাদের এম টি বি নামে একটি ব্যাংকিং অ্যাপস রয়েছে৷ এই অ্যাপের মাধ্যমে আপনি আপনার টাকার লেনদেন হিসাব, টাকা উত্তোলন কিংবা সংগ্রহ সঞ্চয় করেছেন তা লক্ষ্য করতে পারবেন৷ তারা দু-একদিনের মধ্যেই আপনার উপার্জিত অর্থ আপনার কাছে পৌঁছে দিবে৷ তাছাড়া তাদের এটিএম বুথ ব্যবহার করে আপনি আপনার টাকা উত্তোলন করতে পারবেন৷


সুবিধা সমূহ

  • সহজ অ্যাকাউন্ট খোলা এবং পরিচালনা
  • কম ফি
  • 2.5% প্রণোদনা
  • দ্রুত ঝামেলা-মুক্ত উইথড্র
  • ডুয়াল কারেন্সি কার্ড
  • ডলার পেমেন্ট
  • অনলাইন ব্যাংকিং

Apply Here


অন্যান্য সেরা ৫ টি ব্যাংক ফ্রিল্যান্সার এবং অ্যাডসেন্সের জন্য

  1. স্ট্যান্ডার্ড চার্টার্ড ব্যাংক
  2. সিটি ব্যাংক লিমিটেড
  3. ইস্টার্ন ব্যাংক লিমিটেড
  4. প্রাইম ব্যাংক
  5. সোনালী ব্যাংক


সঠিক ব্যাংক নির্বাচন করার টিপস

দেশে দিনে দিনে বেসরকারি ব্যাংকগুলো সংখ্যা বেড়ে যাচ্ছে সেক্ষেত্রে সঠিক ব্যাংক নির্বাচন করার জন্য কয়েকটি বিষয়বস্তুর উপর লক্ষ্য রাখতে হয়। এবং অনেকগুলো দিক বিবেচনা করতে হয়। এখন অনেক ব্যাংক রয়েছে যার মাধ্যমে আপনি ফ্রিল্যান্সিং কিংবা এডসেন্সের টাকা আনতে পারলে ও উত্তোলনের সময় অতিরিক্ত উইড্রফি, প্রণোদনা না দেওয়া, অতিরিক্ত সময় ব্যয় করা ইত্যাদি জন্য ফ্রিল্যান্সারেরগণ বিরক্ত হয়ে যাচ্ছে৷ যার ফলে তাদের ইনকাম আনতে সমস্যা হচ্ছে যার ফলে ফ্রিল্যান্সারের সমস্যা সম্মুখীন হচ্ছে ৷ নিচের বিষয়বস্তুগুলো লক্ষ্য রেখে যে কোন একটি ব্যাংক একাউন্ট খোলার চেষ্টা করবেন৷


1- অনলাইন ব্যাংকিং

ফ্রিল্যান্সারদের সব থেকে গুরুত্বপূর্ণ একটি বৈশিষ্ট্য হচ্ছে অনলাইন ব্যাংকিং সুবিধা৷ যার ফলে তারা ঘরে বসেই তাদের ব্যাংকের স্ট্যাটাস চেক করতে পারবেন৷ সরাসরি ব্যাংকে না গিয়েই অনলাইনে মাধ্যমে আপনার স্টেটমেন্ট চেক করাতে পারবে যার ফলে ফ্রিল্যান্সাররা সমস্যার সম্মুখীন হয় না৷ ফ্রিল্যান্সাররা প্রতিবার স্টেটমেন্ট বার স্ট্যাটাস চেক করার জন্য ব্যাংকে যেতে পারেনা এজন্য অনলাইন ব্যাংকিং কে গুরুত্ব দিতে হবে৷

2- চার্জ এবং ফ্রি

একটি ব্যাংক একাউন্ট খুলতে গেলে প্রথমে আপনাকে লক্ষ্য রাখতে হবে, ব্যাংকের চার্জ এবং ফি ব্যাংক ৷একাউন্ট খুলতে গেলে প্রথমেই আপনি এই দুটো জিনিস ক্লিয়ার হয়ে নিন৷

3- প্রণোদনা

বাংলাদেশ সরকার ঘোষিত রেমিটেন্স এর উপর ২.৫ শতাংশ প্রণোদনা দেয়ার ঘোষণা রয়েছে৷ অনেক ব্যাংক এই প্রনোদনা দেয় না এজন্য ব্যাংক অ্যাকাউন্ট তৈরি করার পূর্বে প্রণোদনা সম্পর্কে জানা প্রয়োজন৷

4- সিকিউরিটি

ব্যাংক নির্বাচন করা সব থেকেও আরেকটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়বস্তু হলো নিরাপত্তা/সিকিউরিটি৷ আপনি অনেক কষ্ট করে আপনার ইনকাম করেছেন ইনকাম যদি ব্যাংক আনার পর নিরাপত্তা ঝুঁকিতে না থাকে সেদিকে লক্ষ্য রাখতে হবে৷ বাংলাদেশে অনেক ব্যাংক রয়েছে যারা অনলাইন হ্যাকিং থেকে নিরাপত্তা দেওয়ার ব্যর্থ হয়৷ এজন্য সিকিউরিটি চেক করার পর ব্যাংক একাউন্ট খুলবেন৷

5- দ্রুত উইড্র

বাংলাদেশে অনেক ব্যাংক রয়েছে যারা দু-একদিনের মধ্যে আপনার উপার্জিত অর্থ উইড্র করতে দেয়৷ আবার অন্য দিকে বাংলাদেশে অনেক ব্যাঙ্কে রয়েছ যারা ১০-১৫ দিনের মধ্যেও উইদ্র দিতে সক্ষম হয় না৷ এজন্য এই দিকটি লক্ষ্য রাখবেন৷

6- ডুয়াল কারেন্সি কার্ড

ফ্রিল্যান্সিং করতে গেলে আপনাকে অবশ্যই একটি বিশ্বব্যাপী ব্যবহারযোগ্য কার্ড প্রয়োজন হবে৷ এজন্য আপনি যে ব্যাংকেই একাউন্ট তৈরি করবেন না কোন সেখান থেকে ক্রেডিট কার্ডের তথ্য রাখবেন এবং ফিচারস এবং অন্যান্য দিকগুলো লক্ষ্য রাখবেন৷ অনেক ব্যাংক রয়েছে যারা ডুয়েল কারেন্সি কার্ড দিয়ে থাকে না এজন্য ভেবে চিন্তে ব্যাংক একাউন্ট তৈরি করবেন৷

7- অনলাইনে অ্যাকাউন্ট খোলা

অনেক ব্যাংক রয়েছে যারা অনলাইনের মাধ্যমে তাদের ব্যাঙ্ক একাউন্ট তৈরি করতে দেন আবার অনেক ব্যাংক করেছি যারা একাউন্ট তৈরি করতে গেলে নানা প্রকার সমস্যায় ফেলে দেয়৷ এজন্য ভালো এবং খুব সহজে খোলা যায় এমন ব্যাংক গ্রহণ করার চেষ্টা করবেন৷


কিভাবে অনলাইনে ব্যাংক একাউন্ট ক্রিয়েট করব

আপনি চাইলে বাংলাদেশের যে কোন প্রান্ত থেকে এই ব্যাংকগুলোতে একাউন্ট তৈরি করতে পারবেন। আপনি চাইলে সরাসরি কিংবা অনলাইনের মাধ্যমে আবেদন করতে পারবেন৷ আমি প্রত্যেকটি ব্যাংকের ডিটেলস এর পর আবেদন লিংক দিয়েছি আপনার চাইলে সেখান থেকে এপ্লাই করতে পারবেন৷ অনলাইনে কিংবা সরাসরি ব্যাংক একাউন্টের জন্য এপ্লাই করতে হলে নিম্নের জিনিসগুলো প্রয়োজন হবে৷

1. অ্যাকাউন্টধারীর জাতীয় পরিচয়পত্র

2. অ্যাকাউন্টধারীর দুই কপি পাসপোর্ট সাইজের ছবি

3. মনোনীত ব্যক্তির পাসপোর্ট সাইজের ছবি

4. ইউটিলিটি বিল

5. কাজের আইডি বা প্রমাণ

6. ফরম পূরণ করা 

Read More

10 Best Banks in Bangladesh for Freelancers 

High CPC Countries List | Highest paying Adsense Country

Best Domain And Web Hosting in Bangladesh : A Complete Guidelines

How To Start Blogging in Bangladesh 

এডসেন্সের টাকা উত্তোলনের জন্য সেরা ১০ টি ব্যাংক

আপনি ব্যাংক একাউন্টের মাধ্যমে আপনার এডসেন্সের উপার্জিত অর্থ উত্তোলন করতে পারবেন৷ আমি নিম্নে সেরা ১০টি ব্যাংক একাউন্টের নাম উল্লেখ করলাম পারবেন৷ নিম্নোক্ত যে কোন একটি ব্যাংক একাউন্ট আপনি উপার্জিত অর্থ আনতে পারবেন৷

1) ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশ লিমিটেড (IBBL)
2) ডাচ বাংলা ব্যাংক লিমিটেড (DBBL)
3) ব্র্যাক ব্যাংক
4) স্ট্যান্ডার্ড চার্টার্ড ব্যাংক
5) ব্যাংক এশিয়া
6) মিউচুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংক (এমটিবি)
7) সিটি ব্যাংক লিমিটেড
8) ইস্টার্ন ব্যাংক লিমিটেড
9) প্রাইম ব্যাংক
10) সোনালী ব্যাংক


ফ্রিল্যান্সিং করতে কি ব্যাংক একাউন্টের প্রয়োজন রয়েছে

ব্যাংক একাউন্টের সাথে ফ্রিল্যান্সিং এর সম্পর্ক রয়েছে কারণ আপনার উপার্জিত অর্থ আপনাকে অবশ্যই ব্যাংক একাউন্টের মাধ্যমে উত্তোলন করতে হবে৷ তাছাড়া আরো অনেক উপায় রয়েছে যার মাধ্যমে আপনি আপনার উপার্জিত অর্থ উত্তোলন করতে পারেন৷


ফ্রিল্যান্সিং এর জন্য কি আলাদা ব্যাংক একাউন্ট করতে হবে

না, আপনি আপনার পার্সোনাল ব্যাংক একাউন্ট এর মাধ্যমে ফ্রিল্যান্সিংয়ের উপার্জিত অর্থ আনতে পারবেন৷ এখানে আলাদাভাবে কোন একাউন্ট তৈরি করতে লাগবে না৷


ব্যাংক একাউন্ট ছাড়াই কি ফ্রিল্যান্সিং করা যায় 

ফ্রিল্যান্সিং এর সাথে ব্যাংক একাউন্টের সরাসরি কোন সম্পর্ক নেই৷ কিন্তু সার্বিক দিক বিবেচনা করলে টাকা উত্তোলনের সময় ফ্রিল্যান্সিং এর সাথে ব্যাংক একাউন্টের প্রয়োজনীয়তা রয়েছে৷ আপনি চাইলে ব্যাংক একাউন্ট ছাড়াই ফ্রিল্যান্সিং করতে পারবেন৷


কিভাবে ফ্রিল্যান্সিংয়ে উপার্জিত অর্থ উত্তোলন করব

আপনি চাইলে পেওনিয়ার কিংবা ব্যাংক একাউন্টে সরাসরি ট্রান্সফার করে আপনার উপার্জিত অর্থ উত্তোলন করতে পারবেন৷ আমি মূলত ব্যাংক একাউন্টে ই প্রাধান্য দিয়ে থাকি কারণ সরাসরি আপনি টাকা আপনার হাতে পেয়ে যাবেন, কোন প্রকার সমস্যা ছাড়াই৷


আমি কি ফ্রিল্যান্সিং পেশা দেখিয়ে ব্যাংক একাউন্ট করতে পারব

অবশ্যই বর্তমানে বাংলাদেশে ফ্রিল্যান্সিং পেশা দেখিয়েও ব্যাংক একাউন্ট সহ যাবতীয় কাজ করতে পারবেন, একজন অন্যান্য পেশাজীবীর মতন৷


ফ্রিল্যান্সারের জন্য সেরা ব্যাংক কোনটি

সার্বিক দিক বিবেচনা করলে দেখা যায় ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশ লিমিটেড সবথেকে ভালো এবং সুবিধা জনক অবস্থানে রয়েছে৷ আপনি চাইলে অন্যান্য ব্যাংকগুলোকে ট্রাই করতে পারেন৷


উপসংহার 

বর্তমানে ফ্রিল্যান্সিং এর চাহিদা দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে সেই সাথে বৃদ্ধি পাচ্ছে বাংলাদেশের রেমিটেন্স৷ বাংলাদেশের অনেক ব্যাংক রয়েছে যেখানে ফ্রিল্যান্সাররা টাকা উত্তোলন করতে পারবে কিন্তু সব ব্যাংক সমান নয়৷ আজকের এই পোস্টে আমরা আলোচনা করলাম সেরা ১০টি ব্যাংক একাউন্ট নিয়ে আপনারা চাইলে অন্যান্য ব্যাংকগুলো কে ট্রাই করতে পারেন৷ কিন্তু ওপরের পাঁচটি ব্যাংক সার্বিক দিক থেকে সেরা বলে আমি বিবেচনা করেই থাকি৷ আরও যদি কোন প্রশ্ন থাকে আপনি কমেন্ট বক্সে জানাতে পারেন আমি নিশ্চয়ই উত্তর দেওয়ার চেষ্টা করব৷


Read More

10 Best Banks in Bangladesh for Freelancers 

High CPC Countries List | Highest paying Adsense Country

How To Start Blogging in Bangladesh 

About the Author

My name is Arefin and I'm an experienced marketer and SEO-friendly article writer. I specialize in creating impactful content that helps boost visibility and rankings on search engines. I'm the owner of Style2Money, a content creation agency…

Post a Comment

Do Not Make Spam
Table of Contents
Related Posts
Cookie Consent
We serve cookies on this site to analyze traffic, remember your preferences, and optimize your experience.
Oops!
It seems there is something wrong with your internet connection. Please connect to the internet and start browsing again.
AdBlock Detected!
We have detected that you are using adblocking plugin in your browser.
The revenue we earn by the advertisements is used to manage this website, we request you to whitelist our website in your adblocking plugin.
Site is Blocked
Sorry! This site is not available in your country.